ঢাকা শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বিভাগসমূহ

রানীশংকৈলে প্রতারক চক্রের ৮সদস্য গ্রেফতার

রফিকুল ইসলাম সুজন,রাণীশংকৈল(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধি।। || ১১:১১ অপরাহ্ণ ॥ এপ্রিল ৮, ২০২৩

ঠাকুরগাঁওয়ের রাণীশংকৈল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গুলফামুল ইসলাম শনিবার ৮ এপ্রিল দুপুরে থানা চত্বরে এক প্রেস ব্রিফিংযের আয়োজন করেন। রানীশংকৈলে প্রতারক চক্রের ৮সদস্য গ্রেফতার বিষয়টি নিশ্চিত করেন।এসময় স্থানীয় সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।
প্রেসব্রিফিংয়ে ওসি তার লিখিত ও মৌখিক বক্তব্যে দেন। বক্তব্যে তিনি গত শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ১টায় সীমান্তবর্তী কোচল গ্রাম থেকে ৮ জন স্বর্ণ প্রতারককে গ্রেফতার বিষয়ে বিস্তারিত তথ্য দেন। ওসি বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে এই প্রতারকদের গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃতরা হলো- ১. রুমা আক্তার(৩৫),স্বামী- মো: তসলিম, গ্রাম- শাহার, পীরগঞ্জ। ২. বর্ণা আক্তার (২৫)৷ স্বামী-মোস্তফা,
গ্রাম- কোচল,রাণীশংকৈল। ৩. আমেনা বেওয়া(৭০) স্বামী- ফজর আলী, গ্রাম -কোচল,রাণীশংকৈল। ৪. রূপালি ( ২৭) স্বামী- রুবেল গ্রাম-কোচল, রাণীশংকৈল। ৫. পারুল আক্তার (১৯) পিতা- মো: বাবুল গ্রাম- কোচল,রাণীশংকৈল। ৬. মো: বিপ্লব(২২) পিতা- শহিদুল গ্রাম- কোচল, রাণীশংকৈল। ৭. সুমন(২৫) পিতা আব্দুস সালাম, গ্রাম-কোচল,রানীশংকৈল ৮. মারুফা পিতা মৃত- আব্দল খালেক গ্রাম-কোচল।– এটি একটি সংঘবদ্ধ চক্র যাতে আরো সদস্য থাকতে পারে।এরা দীর্ঘদিন ধরে এলাকায় লোকজন ভুলিয়ে ভালিয়ে ভুয়া সোনার মুর্তি ও অন্য দ্রব্যাদি বিক্রি করে প্রতারণা করে আসছিল। ওসি (তদন্ত) মহসিন ও সঙ্গীয় ফোর্স তাদেরকে বাড়ি থেকে উল্লিখিত সময়ে গ্রেফতার করে। তাদের নামে থানায় ২টি পৃথক প্রতারণার মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাদেরকে আজ (৮ এপ্রিল) জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

সম্পাদক ও প্রকাশক

 

ওয়েবসাইট: www.prothomdesh.com

 

উপদেষ্টা সম্পাদক