ঢাকা শুক্রবার, ১৪ জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৩১ জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ৭ জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বিভাগসমূহ

নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিলু খানের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন

রিন্টু মুন্সী , নড়াইল প্রতিনিধি: || ১১:৩৭ অপরাহ্ণ ॥ এপ্রিল ১, ২০২৩

মোঃ নিজাম উদ্দিন খান নিলু। তিনি একাধারে নড়াইল জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান। পবিত্র মাহে রমজানেও তিনি বসে নেই। চালিয়ে যাচ্ছেন সমানে রাজনীতি ও সমাজ সেবা। দান করছেন অকাতরে। প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও রমাজানের শুরু থেকেই বেশি বেশি দান অনুদান দিচ্ছেন। প্রতিদিন তাঁর বাসভবন ও অফিসে আসছেন নানাবিধ সমস্যা জর্জরিত সমাজের অবহেলিত মানুষ। সাধ্যমত তাদের সহযোগিত করছেন। প্রতিদিনই জেলার বিভিন্ন এলাকা হতে আসেন রাজনৈতিক নেতা-কর্মী। তাদেরকে দলীয় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে তাদের সাথে কথা বলেন। তাদের মধ্যে অস্বচ্ছল নেতা-কর্মীদের আর্থিক সহযোগিতা করেন। তাদের নানাবিধ সমস্যার কথা আন্তরিক ভাবে শুনে যথাসাধ্য সহযোগিতা করেন।
জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ নিজাম উদ্দন খান নিলু রমজানের রোজা ও পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ ঠিক রেখে চষে বেড়াচ্ছেন রাজনীতির মাঠ। ছুটে যাচ্ছেন জেলার বিভিন্ন বাজার ও গ্রামে। চলে যাচ্ছেন দলের নেতা-কর্মীদের বাড়ি বাড়ি। দলের ত্যাগি নেতা-কর্মীদের কাছে গিয়ে তাদের সুখ দুঃখের খোঁজ খবর নিচ্ছেন।
রোজার ৫ম দিনে তিনি সফর করেন সদর উপজেলার শেখহাটি ও মুলিয়া ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা। তিনি এ দু’টি ইউনিয়নের দলীয় নেতা-কর্মী এবং জনপ্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় করেন। বাজারের ব্যবসায়ী নেতাদের সাথে মতবিনিময় করেন। রমজানে নিত্যপণ্যের বাজার দর ঠিক রাখার জন্য অনুরোধ করেন।
শেখহাটি ইউনিয়ন পরিষদ কার্যালয়ে ইউপি চেয়ারম্যান গোলক বিশ্বাস ও ইউপি সদস্যদের সাথে মত বিনিময় করেন। চেয়ারম্যান গোলক বিশ্বাস শেখহাটি ইউনিয়নের বিভিন্ন সমস্যার কথা তুলে ধরেন। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জননেতা মোঃ নিজাম উদ্দিন খান নিলু জনস্বার্থে সমস্যাগুলির সমাধান করে দেয়ার আশ্বাস দেন। পরবর্তী দিন তিনি ছুটে যান কলোড়া ও সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শনে। তিনি সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ উজ্¦ল শেখ’কে নিয়ে গোবরা বাজার পরিদর্শন করেন। তিনি প্রায় প্রতিদিনই বের হচ্ছেন নেতা-কর্মীদের সুখ দুঃখের খবর জানতে। জেলার বিভিন্ন বাজার অলিগলি ঘুরে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে কথা বলছেন। সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলছেন। গ্রামের অতি সাধারণ মানুষের সাথে কথা বলে তাদের মনের অবস্থা জানার চেষ্টা করছেন। অসহায় হতদদ্রিদের কাছে টেনে নিয়ে আন্তরিক ভাবে কথা বলছেন। পরিস্থিতি ও অবস্থা বুঝে আর্থিক সহযোগিতা দিচ্ছেন।
আলাপচারিতার মধ্য দিয়ে সরকারের উন্নয়ন ও সাফল্যের কথা তুলে ধরে সবাইকে আবারো নৌকায় ভোট দিয়ে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে ক্ষমতার আনার আহবান জানান। এ জন্য তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের সকল বিভেদ ভুলে, গ্রæপিং ত্যাগ করে কাধে কাধ মিলিয়ে কাজ করে দেশনেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করে দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রা অব্যহত রাখার আহবান জানান।
তিনি যখন যে এলাকায় যাচ্ছেন, সেই এলাকার দলীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে সাড়া পড়ে যাচ্ছে। মুহুর্তের মধ্যে দলীয় নেতা-কর্মীদের সাথে সাধারণ লোকজন এসে ভরে যাচ্ছে। নিজ এলাকায় দলের বড় নেতার আগমনে স্থানীয় নেতারা গর্বিত হচ্ছেন। তাঁর আগমনে স্থানীয় নেতা-কর্মীদের মধ্যে অন্য রকম আনন্দ বিরাজ করছে।
কুশালাদি বিনিময় কালে তিনি উপস্থিত জনতার উদ্দেশ্যে সরকারের উন্নয়ন ও সাফল্যের কথা তুলে ধরছেন। উন্নয়নের ধারা অব্যহত রাখতে আগামী সংসদ নির্বাচনে নৌকায় ভোট দেয়ার আহবান জানান। তিনি সকলের নিকট মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তাঁর পরিবারের সকলের জন্য দোয়া কামনা করছেন।
তাঁর সফর সঙ্গী হিসেবে থাকছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আবু হেনা মোস্তফা কামাল স্বপন, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক দেবাশীষ কুন্ডু মিটুল, আওয়ামী লীগ নেতা মেশকাতুল ওয়ায়েজীন লিটু,জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক এ্যাডভোকেট গাউছুল আজম মাসুম,ভিপি ইকবাল,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাঈম ভূইয়া প্রমুখ।
তিনি প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলের মানুষদের দেশের আদর্শ ও খাঁটি দেশপ্রেমিক উল্লেখ করে দেশের উন্নয়ন ও অগ্রযাত্রায় তাদের ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, “মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনাদের মাধ্যমেই স্মার্ট বাংলাদেশ বির্নিমানের স্বপ্ন দেখেন”।

Print Friendly, PDF & Email