ঢাকা শুক্রবার, ৮ ডিসেম্বর, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ, ২৩ অগ্রহায়ণ, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ২৩ জমাদিউল আউয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

বিভাগসমূহ

শ্রীমঙ্গলের চা শিল্পাঞ্চলে বর্ণাঢ্য ফাগুয়া উৎসব অনুষ্ঠিত

আতাউর রহমান কাজল, শ্রীমঙ্গল || ১:১০ পূর্বাহ্ণ ॥ মার্চ ১২, ২০২৩

দেশের অন্যতম পর্যটন শহর ও চায়ের রাজধানী হিসেবে খ্যাত শ্রীমঙ্গলে বিপুল উৎসাহ- উদ্দীপনা ও আনন্দ-উৎসবের মধ্য দিয়ে চা শিল্পাঞ্চলের শ্রীমঙ্গল উপজেলার কালিঘাট ইউনিয়নের ফিনলে চা কোম্পানির ফুলছড়া চা বাগান খেলার মাঠে ঐতিহ্যবাহী ফাগুয়া উৎসব অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চা জনগোষ্ঠীর বহুমাত্রিক সাংস্কৃতিক অনু্ষ্ঠানসমুহ নিয়ে তৃতীয়বারের মতো ঐতিহ্যবাহী ফাগুয়া উৎসব অনু্ষ্ঠিত হলো।

শনিবার (১১ মার্চ) বিকেল ৪টায় ঘন্টা বাজিয়ে বর্ণাঢ্য উৎসবের উদ্বোধন করেন অনুষ্ঠানের উদ্বোধক মৌলভীবাজার জেলার জেলা প্রশাসক মীর নাহিদ আহসান ও গেষ্ট অব অনার ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার, সিলেট নীরাজ কুমার জায়সওয়াল।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শ্রীমঙ্গল উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ভানুলাল রায়, উপজেলা নির্বাহী অফিসার আলী রাজীব মাহমুদ মিঠুন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অর্ধেন্দু কুমার দেব, শ্রীমঙ্গল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহাঙ্গীর হোসেন সরদার, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মিতালী দত্ত, উপজেলা আওয়ামী লীগের সম্পাদক জগৎ জ্যোতি ধর শুভ্র প্রমুখ।

জাতীয় সংগীত ও উদ্বোধনী সংগীতের মাধ্যমে চা শ্রমিকদের নিজস্ব সংস্কৃতি, নৃত্য ও সঙ্গীত নিয়ে শুরু হওয়া সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে চা বাগানের গান, গুরুবন্দনা (ভোজপুরী), হোলি গীত (ভোজপুরী), চা বাগান নাটিকা, পত্র সওরা (উড়িষ্যা), ঝুমুর নৃত্য, ডাল ও কাঠি নৃত্য (তেলেগু), চড়াইয়া নৃত্য (উড়িষ্যা), কমেডি (ভোজপুরি), হাড়ি নৃত্য (উড়িষ্যা), বিরহা হোলি গীত (ভোজপুরী) ও হোড়কা বাদ্যযন্ত্রের সাহায্যে হোলি গীত পরিবেশন করে দেশের বিভিন্ন চা বাগানের সাংস্কৃতিক দল। চা শ্রমিকসহ হাজার-হাজার মানুষ উৎসবে অংশ নেন।

ফাগুয়া উৎসব উদযাপন পরিষদের আহ্বায়ক ৭নং রাজঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিজয় বুনার্জী ও সদস্যসচিব ৮নং কালিঘাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রাণেশ গোয়ালা জানান, ফাগুয়া উৎসব চা-শ্রমিকদের উদ্যোগে একটি বিশেষ আয়োজন। তিন বছর ধরে চা শিল্পাঞ্চলে এ উৎসব পালিত হচ্ছে। অতীতকালে চা শিল্পাঞ্চলের প্রতিটি বাগানে ১৫ দিনব্যাপী ফাগুয়া উৎসব পালন হতো। বর্তমানে ৪ দিনব্যাপী জনগোষ্ঠীর ঐতিহ্যবাহী ফাগুয়া উৎসব পালন করা হয়। রাত ১০ টায় ফাগুয়া উৎসবের সমাপ্তি ঘটে।

Print Friendly, PDF & Email

সম্পাদক ও প্রকাশক

 

ওয়েবসাইট: www.prothomdesh.com

 

উপদেষ্টা সম্পাদক