ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ, ৯ ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ, ১১ শাবান, ১৪৪৫ হিজরি

বিভাগসমূহ

নড়াইলে মামলার আসামীকে রক্ষা করতে মানববন্ধন

রিন্টু মুন্সী,নড়াইল প্রতিনিধি: || ১১:০৩ অপরাহ্ণ ॥ ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২৩

নড়াইলের কালিয়ায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পূর্বশত্রæতার জেরে প্রকাশ্যে দিবালোকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে সাফায়েত শেখ ওরফে সারাফ শেখ (৪২) নামে এক যুবককে হত্যাচেষ্টা করা হয়। সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে সারাফ শেখ এর হাত কেটে বিচ্ছিন্ন করে।
এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার আসামী যুবলীগ নেতা তৌরুতকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। অথচ আসামী তৌরুতের পক্ষে মানববন্ধন করে মানবতাবিরোধীতার এক নিকৃষ্ট উদাহরণ সৃষ্টি করা হয়েছে।
শুক্রবার (১৭ ফেব্রæয়ারি) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার চাঁচুড়ী বাজারে কালিয়া-নড়াইল আঞ্চলিক সড়কে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।
এ হত্যাচেষ্টা মামলার অন্যতম আসামী উপজেলার চাঁচুড়ী ইউনিয়নের যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৌরুত মোল্যা। ঘটনার সাথে জড়িত থাকায় তাকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করেছে জেল হাজতে পাঠিয়েছে পুলিশ।
স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সাবেক যুবলীগ নেতাকে আটক করায় এ হত্যা চেষ্টা মামলাকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে এবং দোষীদের রক্ষা করতে এ মানববন্ধন করা হয়েছে। বিতর্কিত এ মানববন্ধনে হত্যাচেষ্টা মামলার আসামী পক্ষের লোকজন ও আতœীয়-স্বজনেরা এবং স্থানীয় বিএনপির চিহ্নিত কর্মী রেজোয়ান ওরফে রেজো মোল্যা, একাধিক হত্যা মামলার জামিনপ্রাপ্ত আসামীসহ বিতর্কিত লোক দিয়েও এ মানববন্ধন করা হয় বলে অভিযোগ উঠেছে।
মানববন্ধনে বক্তারা সাবেক যুবলীগ নেতা তৌরুতের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলা প্রত্যাহার ও মুক্তির দাবী জানিয়ে ঘটনা সম্পর্কে মিথ্যা বক্তব্য দিয়েছেন বলে স্থানীয়দের অভিযোগ।
জানা গেছে,আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে চন্দ্রপুর গ্রামের মহাসীন মোল্যা ও রবিউল মোল্যা গ্রæপের সঙ্গে আতাউর মৃধা ও লায়েক শেখ গ্রæপের বিরোধ চলছিল। আতাউর মৃধা গ্রæপের সারাফ শেখ চাঁচুড়ী বাজারের একটি পরিবহনের টিকিট মাস্টার হিসেবে কর্মরত। পূর্বশত্রæতার জের ধরে গত ১১ ফেব্রæয়ারি সকাল সাতটার দিকে মুঠোফোনে ‘টিকিটের প্রয়োজন’ এমন মিথ্যা কথা বলে প্রতিপক্ষ রবিউল মোল্যার সম্পর্কে শ্যালক চাঁচুড়ী ইউনিয়নের যুবলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক তৌরুত মোল্যা বাড়িতে ডেকে আনেন সারাফকে। এরপর তার কর্মস্থল টিকিট কাউন্টারে যাওয়ার সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা প্রতিপক্ষ গ্রæপের মহাসীন মোল্যা ও রবিউল মোল্যার নেতৃত্বে তৌরুত মোল্যা,মাকছি সরদার,মহাসিন মোল্যা,বিপ্লব মোল্যাসহ ৫২ জনের একদল সন্ত্রাসী রাম দা,ছ্যান দা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে সারাফের ওপর হামলা চালায়। তখন সারাফ শেখ প্রাণ ভয়ে দৌঁড়ে নিজ গ্রামের আজেয়ার মোল্যার বাড়িতে আশ্রয় নিতে গেলে ওই বাড়ির সিড়ির সামনেই হামলাকারীরা তাকে ধরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তার বাম হাতের কবজি শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে দেয়। এছাড়া ডান হাতের কবজি ও দুই পা কেটে শরীর থেকে প্রায় বিচ্ছিন্ন করে। গুরুতর আহত অবস্থায় তাঁকে প্রথমে নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালে ও পরে ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে ভর্তি করার পর থেকে ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এ সময় হামলাকারীরা সারাফের সহোদরসহ একই গ্রæপের আরও চারজনকে কুপিয়ে গুরুতর জখম করেন।
এ ঘটনায় আহত সারাফের বড় ভাই লায়েক শেখ বাদি হয়ে ৫২ জনের নাম উল্লেখ পূর্বক আরো কয়েকজনকে অজ্ঞাতনামা আসামি করে থানায় হত্যা চেষ্টা মামলা দায়ের করেন।
এ প্রসঙ্গে কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শেখ তাসমীম আলম বলেন,‘ বাদীর লিখিত আবেদনের প্রেক্ষিতে মামলাটি রুজু করা হয়েছে। মামলাটি তদন্তাধীন। তদন্তে প্রমাণিত হবে কে দোষী বা নির্দোষ।’

Print Friendly, PDF & Email

সম্পাদক ও প্রকাশক

 

ওয়েবসাইট: www.prothomdesh.com

 

উপদেষ্টা সম্পাদক